রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৫:৫৯ এএম


‘কোহলি ৯১১’ আসলে কি?

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৯:৩৩, ১১ জুলাই ২০১৯  

বুধবার (১০ জুলাই) ২০১৯ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে কিউইদের বিপক্ষে মাত্র ১ রানে আউট হয়েছেন কোহলি। এর আগে ২০১১ বিশ্বকাপে পাকিস্তান ও ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিনি যথাক্রমে ৯ ও ১ রানে আউট হয়েছিলেন।

বিশ্বকাপের শেষ তিন সেমিফাইনালে তার ইনিংস যথাক্রমে ৯, ১, ১। এর সঙ্গে কি অন্য কিছুর মিল খুঁজে পাচ্ছেন? হুম, ঠিকই ধরেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইমারজেন্সি নাম্বার’ তথা ৯১১-এর সঙ্গে মিলে যাচ্ছে কোহলির এই তিন ইনিংস। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ট্রল করছেন ক্রিকেটভক্তরা।

রবিন নামের একজন শেষ তিন বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে কোহলির ইনিংস উল্লেখ করে টুইট করেছেন, ‘এটাই এখন চলছে, বন্ধুরা!!! ভারতের জন্য ৯১১।`

রোহিত ঠাকুর নামে একজন লিখেছেন, ‘বিরাট একজন বড় কিংবদন্তি। ৩ সেমির স্কোর- ৯, ১, ১। অবশ্যই এটা ইমারজেন্সির জন্য (৯১১)।`

রৌমেন লিখেছেন, ‘বিরাটের ২ সেমিফাইনাল স্কোর ২০১১-৯, ২০১৫-১, ২০১৯-১। ৯১১, ইমারজেন্সিতে কল করেন। ওহ, দুঃখিত এটা ভারত, ইউএস নয়।’

ওয়ানডেতে ৫৯.৭০ গড়ের মালিক কোহলি এবারের আসরের সেমিতে টিকতে পেরেছেন মাত্র ৬ বল। কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্টের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে অবশ্য রিভিও নিয়েছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক। কিন্তু রিল্পেতে দেখা যায় বল লাইনেই ছিল আর স্ট্যাম্পের বেল স্পর্শ করতো। ফলে রিভিও নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি ড্রেসিং রুমের পথ ধরতে হয় তাকে।

২০১১ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পাকিস্তানের পেসার ওয়াহাব রিয়াজের বলে আউট হওয়ার আগে ৯ রান করেন কোহলি। ২০১৫ বিশ্বকাপে অজি পেসার মিচেল জনসনের বলে উইকেটরক্ষক ব্র্যাড হাডিনের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১ রান।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর