সোমবার ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০:০৬ এএম


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে কাল থেকে ভর্তি পরীক্ষা

কুবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:২৭, ৭ নভেম্বর ২০১৯  

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে কাল(৮ই নভেম্বর) থেকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

জানা যায়, ৮ নভেম্বর (শুক্রবার) সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ‘এ’ ইউনিট এবং বিকাল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

তারপর ৯ নভেম্বর (শনিবার) সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

জানা যায়,এবার ছয়টি অনুষদের অধীনে মোট ১ হাজার ৪০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৬৮ হাজার ৭৭ জন শিক্ষার্থী। ‘এ’ ইউনিটে (বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদ) সাতটি বিভাগে মোট ৩৫০টি আসনে ভর্তির জন্য আবেদন জমা পড়েছে ২৬ হাজার ৯৭৫ টি। ‘বি’ ইউনিটে (কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন অনুষদ) আটটি বিভাগে ৪৫০টি আসনের বিপরীতে ২৮ হাজার ২৯৫ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে (ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ) চারটি বিভাগে ২৪০টি আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ৮০৭ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। যথাক্রমে ‘এ’ ইউনিটে একটি আসনের বিপরীতে ৭৭ জন, ‘বি’ ইউনিটে একটি আসনের বিপরীতে ৬৩ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে ৫৩ জন ভর্তিচ্ছু ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.cou.ac.bd এবং হেল্প লাইন ০১৫৫৭৩৩০৩৮১-৮২ তে জানা যাবে।

এবার ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণসহ বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এতে পরীক্ষার্থীদেরকে যানজট বিবেচনা করে এক দিন আগেই কুমিল্লায় অবস্থান করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৩০ মিনিট পূর্বেই স্ব স্ব কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে, বিলম্বে পরীক্ষার্থীদেরকে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। পরীক্ষার নিরাপত্তার স্বার্থে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের মুখমন্ডল ও কান খোলা রাখতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষায় কোন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্র্রে মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ, সানগ্লাস, সিম/ক্রেডিট কার্ড বা কোন প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। পরীক্ষা চলাকালীন পরীক্ষা কেন্দ্রে তালিকাভূক্ত সংশ্লিষ্ট বিশেষ দায়িত্বরত ব্যক্তি ব্যতিত অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবে না।

অন্যদিকে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কেন্দ্রের মূল ফটক দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সময় তাদের তল্লাশি করা হবে। এছাড়া কেন্দ্র ও বাহিরে আশ-পাশের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা, র‌্যাব ও সাদা পোশাকে নিরাপত্তা সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনসিসি এবং রোভার স্কাউট নিয়োজিত থাকবে।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর