মঙ্গলবার ১৬ জুলাই, ২০১৯ ০:২৪ এএম


কিভাবে উদ্ধার হলো সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভ?

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৪:৫০, ২০ জুন ২০১৯  

চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজের ১১দিন পর সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের ভাগ্নে সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভকে ময়মনসিংহের তারাকান্দা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোরে তারাকান্দা উপজেলার মধুপুর বটতলা এলাকার জামিল অটোরাইস মিলের সামনে থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

সকাল পৌনে ৯টার দিকে নিজ কার্যালয়ের সামনে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন এ তথ্য জানান।

পুলিশ সুপার বলেন, ভোর ৫টা ২০ মিনিটে একটি ফোনে চট্টগ্রাম অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের ডিসি আমাকে ফোন করে জানান, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভকে কে বা কারা তারাকান্দা উপজেলার মধুপুর বটতলা জামিল অটো রাইস মিলের সামনে ফেলে গেছে। খবর পেয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে তাকে উদ্ধার করে আমার বাংলোতে নিয়ে আসি।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে সৌরভের কাছে জানতে চাওয়া হয় তিনি কীভাবে এখানে এসেছেন, কারা এখানে ফেলে রেখে গেছে। সৌরভ জানান, এ বিষয়ে তিনি পরে কথা বলবেন। শুধু এইটুকু জানান, কে বা কারা তাকে আটকে রাখে। সেখানে প্রাথমিক কিছু সেবা প্রদান করা হয়। পরে সকাল ৮টার দিকে ডিবি পুলিশের মাধ্যমে তাকে পরিবারের কাছে ঢাকার বনানীর বাসায় পাঠানো হয়। তিনি সুস্থ্য ও অক্ষত আছেন বলেও জানান পুলিশ সুপার।

জামিল অটো রাইস মিলের ম্যানেজার কাঞ্চন ও ফোরম্যান সমির জানান, আমরা ভোরে ঘুমিয়েছিলাম। এসময় কান্নাকাটির শব্দ শুনতে পাই। ঘর থেকে বের হয়ে দেখি এক লোককে গাড়ি থেকে নামিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে দ্রুত গাড়ি নিয়ে চলে গেল কিছু লোক। লোকটি অনেকটা বিপর্যস্ত। সে জানায় তার নাম সৌরভ। সে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের ভাগ্নে। এ কথা বলার পর আমি বিষয়টি মিল মালিক হিজবুল বাহার খান বাচ্চুকে জানাই। মিল মালিক বিষয়টি পুলিশকে জানানোর কথা বলেন। এ সময় আমরা উনাকে নিয়ে মিলের ভেতরে নিয়ে একটি চেয়ারে বসাই। পরে সৌরভ তার পরিবারের একটি মোবাইল নাম্বার দিলে ম্যানেজার কাঞ্চন বিষয়টি পরিবারকে জানান। পরিবার পরে বিষয়টি চট্টগ্রাম অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটকে জানায়।

উল্লেখ্য, গত ৯ জুন চট্টগ্রাম নগরীর অফমি প্লাজার সামনে থেকে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভকে একটি মাইক্রোবাসে করে কৌশলে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সৌরভের বাবা বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় জিডি করেন।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর