মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ১৬:৫১ পিএম


এমপিওভুক্তির জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুই কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:৩৪, ২০ জুন ২০১৮   আপডেট: ০৯:০৬, ২১ জুন ২০১৮

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮-এর ১৬(ক) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী এমপিওভুক্তির জন্য প্রতিষ্ঠান বাছাই করতে কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।

কমিটি-১ আদেশ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

কমিটি-২ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

বুধবার এই বিভাগের যুগ্মসচিব নুসরাত জাবীন বানু স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে কমিটি ঘোষণা দেওয়া হয়।

তাদের কার্যক্ষমতা উল্লেখ করা হয়েছে, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮ অনুযায়ী নতুন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ করা। প্রতিষ্ঠানের আবেদনে প্রদত্ত তথ্যে কোনো অনিয়ম বা অসামঞ্জসতা থাকলে তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ করবে। প্রাসঙ্গিক অন্যান্য বিষয়ে সুপারিশও করবে তারা।

কমিটিতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিবকে (বেসরকারি মাধ্যমিক) আহ্বায়ক করে নয় সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। কমিটিতে সদস্য রাখা হয়েছে মহাপরিচালক (ব্যানবেইস), যুগ্মসচিব (বেসরকারি মাধ্যমিক), যুগ্মসচিব (আইন), পরিচালক (মাধ্যমিক) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, পরিচালক (কলেজ) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব (কলেজ), সিনিয়র সহকারী সচিব (বাজেট)। এ ছাড়া কমিটিতে সদস্য সচিবের দায়িত্ব পালন করবেন যুগ্মসচিব (বেসরকারি মাধ্যমিক-৩)।

আরেক আদেশে বলা হয়েছে, ‘অনলাইন অ্যাপলিকেশন গ্রহণ ও ব্যবস্থাপনা’ কমিটি। এতে কমিটির প্রধান (সভাপতি) করা হয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষা ও পরিসংখ্যান ব্যুরো’র (ব্যানবেইস) মহাপরিচালককে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব (বেসরকারি মাধ্যমিক-১), এই বিভাগের সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট, বাংলাদেশ প্রকেৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) প্রতিনিধি, ইলেক্ট্রনিক ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (ইএমআইএস) সেলের সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, অধিদপ্তরের প্রোগ্রামার এবং ব্যানবেইসের সিস্টেম এনালিস্ট।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বেসরকারি মাধ্যমিক) জাবেদ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘অনলাই অ্যাপলিকেশনের মাধ্যমে এমপিওভুক্ত করা হবে। আবেদন করা প্রতিষ্ঠান শর্তপূরণ করেছে কি না-তা যাচাই করা হবে। শর্তপূরণ করা প্রতিষ্ঠান নম্বরের ভিত্তিতে এমপিভুক্ত হবে।

গত ১০ জুন থেকে এমপিওভুক্তির দাবিতে বেসরকারি ননএমপিও শিকরা আন্দোলন করছেন। সর্বশেষ তারা আমরণ অনশনের আহ্বান জানিয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন ননএমপিও শিক্ষক কর্মচারীরা।

আরো পড়ুন: সরকার এমপিওভুক্তির কাজ শুরু করেছে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর