বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:০৭ পিএম


এখন কাশ্মীরি সুন্দরীদের বিয়ে করতে পারবে বিজেপি নেতা-কর্মীরা

এডুকেশন বাংলা ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২০:০৪, ৭ আগস্ট ২০১৯  

জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করেছে ভারত। এতে ভারতজুড়ে উল্লাস করছে বিজিপি। এরইমধ্যে উত্তরপ্রদেশের মুজফফরনগরে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন বিজেপির বিধায়ক বিক্রম সিং সাইনি।

দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এবার আমাদের দলের কর্মীরা সুন্দরী কাশ্মীরি নারীদের বিয়ে করতে পারবেন। ফর্সা টুকটুকে কাশ্মীরি মেয়েদের বিয়ে করতে পারবেন। আর কোনও বাধা রইল না।’

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার উদযাপন অনুষ্ঠানে বিজেপির বিধায়কের মন্তব্যটি সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

বিধায়ক বলেন, ‘কর্মীরা খুবই উত্তেজিত এবং যারা অবিবাহিত তারা তো এবার ওখানে বিয়েও করতে পারবে। এখন আর কোনও সমস্যা নেই। এর আগে ওখানে নারীদের উপর অত্যাচার হতো। যদি ওখানকার কোনও মেয়ে উত্তরপ্রদেশের কোনও ছেলেকে বিয়ে করতো তাহলে নাগরিকত্ব বাতিল হয়ে যেত। ভারত ও কাশ্মীরের নাগরিকত্ব আলাদা ছিল। আর এখানকার মুসলিম পুরুষদেরও আনন্দ করা উচিত। ওখানে বিয়ে করুন। ফর্সা কাশ্মীরী মেয়েদের। আনন্দ করা উচিত। সবার আনন্দ করা উচিত, সে হিন্দু হোক কি মুসলিম। এ নিয়ে সারা দেশের আনন্দ করা উচিত।’

এ ব্যাপারে ওই বিধায়ককে প্রশ্ন করা হলে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তিনি বলেন, ‘এখন কোনও সমস্যা ছাড়াই যে কেউ কাশ্মীরি নারীদের বিয়ে করতে পারবেন। এটাই সত্যি। এটা কাশ্মীরের মানুষের স্বাধীনতা। এখন কাশ্মীর স্বাধীনতা পেয়েছে।’

ওই ভিডিওতে বিধায়ক আরও বলেছেন, ‘মোদিজি আপনি আমাদের স্বপ্ন পূরণ করেছেন। সর্বত্র মানুষ ঢাক বাজিয়ে আনন্দ করছে। সে লাদাখ হোক কিংবা লেহ। গতকাল আমি একজনকে ফোন করে জানতে চাই ওখানে কোনও বাড়ি আছে কিনা।’

বিধায়ক বলেন, আমি কাশ্মীরে বাড়ি কিনতে চাই। ওখানে সবকিছুই সুন্দর, ওই জায়গাটা, ওখানকার পুরুষ এবং নারীরা। সব কিছু।

পরে নিজের মন্তব্যের সমর্থনে বিধায়ক বলেন, নিজের গ্রামে যে ভাষায় কথা বলেন সে ভাষাতেই এখানেও কথা বলেছেন তিনি।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর