সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:০৫ পিএম


উচ্চ মাধ্যমিক পাসেই ব্যাংকে চাকরি

প্রকাশিত: ১৭:২৫, ২২ মার্চ ২০১৮  

জনবল নেবে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক। প্রতিষ্ঠানটি ৪৮৫ জন ক্যাশ সহকারী নেবে। তাদেরকে নিয়োগ দেওয়া হবে দেশের ৪৮৫টি উপজেলায়। এ লক্ষ্যে জনবল চেয়ে সম্প্রতি বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। সবচেয়ে বড় সুযোগ হচ্ছে, উচ্চ মাধ্যমিক বা এইচএসসি পাশ করলেই যে কেউ আবেদন করতে পারবেন পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ক্যাশ সহকারী পদে।

ব্যাংকে যারা নিশ্চিত ক্যারিয়ার গড়তে চান তারা তারা আবেদন করতে পারেন এসব পদে। কারণ ব্যাংকের চাকরিতে রয়েছে নানান সুযোগ সুবিধা। যেমন ব্যাংকিং সেক্টরে কাজের ভালো পরিবেশ রয়েছে। বেতন কাঠামো ইর্ষণীয়। বছরে বেশ কয়েকটি ইনসেনটিভ পাওয়া যায়, যা অন্য বহু প্রতিষ্ঠানে নেই। ব্যাংকারদের সামাজিক মর্যাদার পাশাপাশি রয়েছে চাকরি নিরাপত্তা এবং পেনশনের ব্যবস্থা। নিয়মমাফিক ইনক্রিমেন্ট, প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্রাচ্যুইটি। রয়েছে হাউস লোন, কার লোনসহ নানা সুবিধা। মোটকথা কেউ ব্যাংকে চাকরি পেলে তার অর্থনেতিক নিরাপত্তা নিশ্চিত।

আবেদনের যোগ্যতা

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই আবেদন করা যাবে ক্যাশ সহকারী পদে। কোনো পরীক্ষায় তৃতীয় বিভাগ থাকা চলবে না। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় গ্রেডিং পদ্ধতিতে কমপক্ষে জিপিএ ২.৮৫ থাকতে হবে। কম্পিউটার চালনায় দক্ষতা থাকতে হবে।

বয়সসীমা

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের এসব পদে আবেদনের জন্য গত ২৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে প্রার্থীর সর্বোচ্চ বয়সসীমা হতে হবে ১৮ থেকে ৩০ বছর। তবে মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এবং শারীরিক প্রতিবন্ধীদের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩২ বছর।

আবেদন যেভাবে

আবেদন করতে হবে অনলাইনে। psb.teletalk.com.bd/apply.php ঠিকানায় প্রবেশ করে পূরণ করতে হবে অনলাইন আবেদন ফরম। আবেদনের সময় স্ক্যান করে নির্ধারিত স্থানে আপলোড করতে হবে ৩০০ বাই ৩০০ পিক্সেলের রঙিন ছবি এবং ৩০০ বাই ৮০ পিক্সেলের স্বাক্ষর। ছবি ও স্বাক্ষরের সর্বোচ্চ সাইজ হতে হবে যথাক্রমে ১০০ ও ৬০ কিলোবাইট। আবেদনপত্র চূড়ান্ত সাবমিট করার আগে কোনো ভুল তথ্য আছে কি না যাচাই করতে হবে। চাকরিরতদের আবেদন করতে হবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে। বিবাহিত মহিলা প্রার্থীদের স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ব্যবহার করতে হবে স্বামীর স্থায়ী ঠিকানা। নির্দেশনা অনুসারে সব তথ্য পূরণ করে আবেদনপত্র সাবমিট করলে ইউজার আইডি, ছবি ও স্বাক্ষরযুক্ত একটি অ্যাপ্লিক্যান্ট কপি দেওয়া হবে। এটি প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে।

ইউজার আইডি ব্যবহার করে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার ফি বাবদ ২৫০ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা

এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে আবেদন প্রক্রিয়া। আবেদন করা যাবে ২৯ মার্চ পর্যন্ত।

 

আবেদনে লাগবে যা যা

মৌখিক পরীক্ষার সময় সব ধরনের সনদের মূল কপি দেখাতে হবে। আবেদনপত্রের প্রিন্ট কপি এবং সব সনদের এক কপি ফটোকপি সত্যায়িত করে জমা দিতে হবে। স্থায়ী বাসিন্দা প্রমাণের জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের দেওয়া সনদ, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় আবেদন করলে তার সনদ, শারীরিক প্রতিবন্ধী, এতিমখানা নিবাসী, উপজাতি, আনসার-ভিডিপি ইত্যাদি কোটায় আবেদন করলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দেওয়া সনদের এক কপি সত্যায়িত ফটোকপি দাখিল করতে হবে।

 

প্রবেশপত্র ও পরীক্ষার সময়

যোগ্য প্রার্থীদের psb.teletalk.com.bd বা www.pallisanchaybank.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে রোল নম্বর, ছবি, পরীক্ষার তারিখ, সময় ও ভেন্যুর নাম সংবলিত প্রবেশপত্র সংগ্রহ করা যাবে। এটি রঙিন প্রিন্ট করতে হবে। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সময় প্রবেশপত্র সঙ্গে নিতে হবে। প্রবেশপত্র সংগ্রহের বিষয়টি প্রার্থীদের এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হবে।

পরীক্ষার ধরন ও প্রস্তুতি

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকে সম্প্রতি নিয়োগ পাওয়া অন্তত তিন জন ক্যাশ সহকারীর সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হয়। লিখিত পরীক্ষায় প্রশ্ন করা হয়ে থাকে বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান থেকে। বাংলায় ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির পাঠ্য বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো পড়তে হবে। জানতে হবে কবি-সাহিত্যিকদের জীবন ও কর্ম।

গণিতে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির পাঠ্য বই অনুসরণ করতে হবে। সুদকষা, ঐকিক নিয়ম, অনুপাত, সমানুপাত, শতকরা, লসাগু-গসাগু, লাভ-ক্ষতি, ভগ্নাংশ, লগারিদম থেকে প্রশ্ন আসতে পারে। দেখতে হবে বীজগণিতের সূত্র, অনুসিদ্ধান্ত, জ্যামিতি ও পরিমিতির সাধারণ নিয়মাবলি।

সাধারণ জ্ঞানের জন্য নজর রাখতে হবে সমসাময়িক বিষয়ের ওপর। জানতে হবে ব্যাংকিং সেক্টরের হালনাগাদ তথ্য। সঙ্গে জানতে হবে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক আলোচিত বিষয় সম্পর্কে। পড়তে হবে ভালোমানের সাধারণ জ্ঞানের বই, দৈনিক পত্রিকা ও কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক মাসিক সাময়িকী।

মৌখিক পরীক্ষা

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে। ব্যাংকিং খাত, অর্থনীতি, সমসাময়িক বিষয়, নিজ জেলা, নিজের সম্পর্কে জানতে চাওয়া হতে পারে। প্রশ্ন করা হতে পারে পদ সম্পর্কেও। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। উপস্থিত বুদ্ধিমত্তা, সুন্দর ও সাবলীলভাবে গুছিয়ে কথা ক্ষমতা দেখা হতে পারে মৌখিক পরীক্ষায়।

বাড়তি যোগ্যতা

ব্যাংকারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ব্যাংকের চাকরি মর্যাদাসম্পন্ন ও সুযোগ সুবিধা বাড়ায় প্রার্থীদের বাড়তি যোগ্যতাগুলোও পরখ করে দেখা হয়। তাই ব্যাংকার হওয়ার জন্য একাডেমিক পড়ালেখার পাশাপাশি বাড়তি যোগ্যতাও থাকা চাই। ব্যাংকে নিয়োগের ক্ষেত্রে মোটাদাগে আবেদনকারীর বিষয়গত জ্ঞান কতটা গভীর তা যাচাই করা হয়ে থাকে। তার ফাংশনাল নলেজ খতিয়ে দেয়া হয়। ভাইবাতে প্রার্থীর জড়তা ও প্রশ্নের উত্তর নিয়ে দ্বিধাদ›দ্ব নেগেটিভ মার্কিং করা হয়। এজন্য তার বাচনভঙ্গিও স্মার্ট হওয়া জরুরি। আÍবিশ্বাস থাকা চাই অটুট। এছাড়া প্রার্থীর কমিউনিকেশন স্কিল, ইংরেজি দক্ষতা, কম্পিউটারে পারদর্শিতা, সৃজনশীলতা, নেতৃত্ব গুনাগুন, দায়িত্ববোধ, সততা, ন্যায়নিষ্ঠা সর্বোপরি সত্যিই তিনি কাজটির জন্য উপযুক্ত কি না সে বিষয়গুলো যাচাই শেষেই চ‚ড়ান্ত নিয়োগ দেয়া হয়।

বেতন ও সুযোগ-সুবিধা

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ক্যাশ সহকারী পদে জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুসারে ১০২০০-২৪৬৮০ টাকা স্কেলে বেতনসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে। তিন বছর পরে পদোন্নতির সুযোগ রয়েছে। সিনিয়র অফিসার পর্যন্ত পদোন্নতির সুযোগ রয়েছে একজন ক্যাশ সহকারীর।

যোগাযোগ

আবেদনসংক্রান্ত যেকোনো ধরনের তথ্যের জন্য টেলিটক মোবাইল থেকে যোগাযোগ করা যাবে ১২১ নম্বরে। ই-মেইল করা যাবে [email protected] ঠিকানায়। অথবা সরাসরি যোগাযোগ করা যাবে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, প্রধান কার্যালয়, রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার (লেভেল-৮), ৩৭/৩/এ ইস্কাটন গার্ডেন রোড, ঢাকা-১০০০ ঠিকানায়।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর