বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ৪:৩০ এএম


ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী, গ্রেপ্তার ১

এডুকেশন বাংলা ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১৫:২০, ২৯ আগস্ট ২০১৯  

রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেখে শ্যামলীর হেলথ ভিশন নামে একটি প্রতিষ্ঠানে ইন্টারভিউ দিতে গিয়েছিলেন। সেখানেই ইন্টারভিউ বোর্ডে তাঁকে পরিবেশন করা পানীয়ের সঙ্গে নেশাজাতীয় ওষুধ মিশিয়ে অজ্ঞান করে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা করার পর আহমেদ ফয়েজ (৩০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সে তরুণী শেরেবাংলা নগর থানায় দুজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন। এরপর আহমেদ ফয়েজকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনায় নাহিদ নামে আরেকজনকে খুঁজছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এর আগে অভিযোগ পেয়ে রাতেই সেই অফিসে অভিযান চালায় পুলিশ। তবে অভিযানে কাউকে পাওয়া যায়নি।

শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুনশী মামলা দায়েরের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, অভিযুক্ত দুজনের মধ্যে ফয়েজ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পলাতক আরেক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

ওসি বলেন, মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে ফয়েজকে আজই সোপর্দ করা হবে। আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করলে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ধর্ষণের ঘটনার সাথে আর কে বা কারা জড়িত।

এছাড়া ওই তরুণীকে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হতে ওই ভবনের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অভিযোগে প্রকাশ, গতকাল বুধবার দুপুরে শ্যামলীর ৩ নম্বর সড়কে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার শিকার তরুণী একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন বলে জানিয়েছেন।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর