শুক্রবার ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:১০ পিএম


আবরার হত্যা: নটরডেম শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:৪৪, ১৪ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ২০:৫৫, ১৪ অক্টোবর ২০১৯

আবরার ফাহাদ হত্যার বিচার চেয়ে সোমবার দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলে বিক্ষোভ করেছেন নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। দুপুর ১টার দিকে শিক্ষার্থীরা কলেজ ড্রেস পরে নটর ডেম কলেজের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বের হন। মিছিলটি শাপলা চত্বরে এলে সেখানে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। শাপলা চত্বরে রাস্তার ওপর বসে ও দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করেন তারা।

‘ফাঁসি ফাঁসি, ফাঁসি চাই, হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই,’ ‘আমার ভাই কবরে, খুনি কেন বাইরে,’ ‘অ্যাকশন অ্যাকশন, ডাইরেক্ট অ্যাকশন’, ‘আর নয় অনাচার, এবার চাই সুবিচার’- শিক্ষার্থীদের এ ধরনের স্লোগানে কম্পিত হয়ে ওঠে মতিঝিল এলাকা।

শাপলা চত্বর মোড়ে পুলিশ পাহারায় মিনিট দশেক বিক্ষোভ করার পর শিক্ষার্থীরা আবার মিছিল করতে করতে নটর ডেম কলেজের সামনে ফিরে যান।

বিক্ষোভে অংশ নেয়া একাধিক শিক্ষার্থী জানান, তারা ক্লাস শেষ করে আবরার ফাহাদের হত্যার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে এই বিক্ষোভের আয়োজন করেন।

তারা বলেন, বুয়েটের মতো প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে মেরে ফেলার মতো ঘটনা কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই। দ্রুতই এ বিচার করতে হবে।

ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়ার জেরে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে গত ৬ অক্টোবর দিবাগত রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরদিন দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন, ‘ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।’

নিহত আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

এ ঘটনার পর হত্যাকারীদের বিচার চেয়ে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের ১০ দফা দাবিতে আন্দোলনে উত্তাল হয়ে উঠে বুয়েট ক্যাম্পাস। লাগাতার আন্দোলন ও দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আবরার ফাহাদ হত্যায় অভিযুক্ত বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের ১৯ নেতাকর্মীকে ক্যাম্পাস তেকে অস্থায়ী বহিষ্কার করা হয়। সেই সঙ্গে বুয়েটে ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ১৩ ও ১৪ অক্টোবর দু-দিন আন্দোলন শিথিল করেন বুয়েটের আন্দোলনকারীরা। আজ শঙ্কা ছাড়ায় ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত টানা তিন ঘণ্টা লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আর স্থাপত্য বিভাগে ভর্তির জন্য আবেদনকারীদের দুপুর ২টায় অঙ্কন পরীক্ষা শুরু হবে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে এই পরীক্ষা।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর