রবিবার ২১ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:০৬ পিএম

Sonargaon University Dhaka Bangladesh
University of Global Village (UGV)

আজও রাজধানীর বেশ কয়েকটি জায়গায় অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:৫৮, ৫ আগস্ট ২০১৮  

নিরাপদ সড়কের দাবিতে সপ্তম দিনের মতো রাজধানীর বেশ কয়েকটি জায়গায় অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা। সাংবাদিকদের ছবি তুলতে বাধা দেয়া হচ্ছে উত্তরা, ধানমন্ডি এবং রামপুরা এলাকায়।

সংখ্যায় আগের দিনগুলোর মতো বিপুল না হলেও রোববার রাজধানীর ধানমন্ডি, আসাদ গেইট, উত্তরা, রামপুরা, বনানী ও কুড়িল এলাকায় রাস্তায় অবস্থান নিতে দেখা গেছে শিক্ষার্থীদের।

উত্তরা হাউজ বিল্ডিং এলাকায় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাস্তায় নামে কয়েক শ` শিক্ষার্থী। উত্তরার বিভিন্ন সেক্টর থেকে বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আজমপুর এলাকায় জড়ো হয়ে মূল সড়কে অবস্থান নেয়।

স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজি, উত্তরা ইউনিভার্সিটি, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজি, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের এই বিক্ষোভে দেখা গেছে।

এই শিক্ষার্থীদের বেশির ভাগই ছিলেন ইউনিফর্ম পরা। আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে অন্য পক্ষ ঢুকছে, পুলিশের এমন হুঁশিয়ারির পর পরিচয়পত্র ছাড়া কাউকে বিক্ষোভে যোগ দিতে দিচ্ছে না এই শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কে অবস্থান নিয়ে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ বলে স্লোগান দিচ্ছে তারা। তাদের অবস্থানের কারণে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া সাংবাদিকদের ছবি তুলতে ও ভিডিও ধারণে বাধা দিচ্ছে।

কয়েকজন সাংবাদিক উত্তরা হাউজ বিল্ডিং এর ফুট ওভার ব্রিজে গিয়ে ভিডিও করতে গেলে তাদের দিতে তেড়ে আসে একদল শিক্ষার্থী। পরে আরেক দল শিক্ষার্থী এসে ওভারব্রিজ থেকে সাংবাদিকদের নামিয়ে দেয়।

এক শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের বলেন, গতকাল আপনারা কোথায় ছিলেন? আপনারা তো কাল কিছুই করেননি। আপনাদের আর আমাদের দরকার নাই।

রোববার বিভিন্ন স্থানে আন্দোলনকারীদের উপর সরকার সমর্থক ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়েছিল বলে শিক্ষার্থীদের অভিযোগ।

বনানীতে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরাও সাংবাদিকদের ছবি তুলতে বাধা দেয়। দুপুরে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়েছে রামপুরায়ও। আসাদ গেইটের আড়ং এর সামনে রাস্তায় জড়ো হয়েছে দুই শতাধিক শিক্ষার্থী। দুপুর ১টার দিকে তাদের শুক্রাবাদের দিকে এগোতে দেখা গেছে। কলাবাগান, সায়েন্সল্যাব এলাকায় জড়ো হতে দেখা গেছে শিক্ষার্থীদের।

গত ২৯ জুলাই ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসের চাপায় রমিজউদ্দিন ক্যান্টমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর সড়কে নামে শিক্ষার্থীরা। নিরাপদ সড়কের দাবিতে পরদিন ধরে টানা ঢাকার সড়কে রয়েছে শিক্ষার্থীরা।

এছাড়া, রাজধানীর বাইরে জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছেন নিরাপদ সড়কের দাবিতে।

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর