শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৪:১৭ পিএম


অনির্বাণ লাইব্রেরির উদ্যোগে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:৫৬, ৯ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৩:১৪, ৯ নভেম্বর ২০১৯

অনির্বাণ লাইব্রেরির উদ্যোগে শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচী আওতায় `নীলসাগর-অনির্বাণ শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান-২০১৯` অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল (৮ নভেম্বর)অনির্বাণ লাইব্রেরিতে এ বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশ-এর উপ-মহা পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি,খুলনা রেঞ্জ) ড.খঃ মহিদ উদ্দিন, বিপিএম (বার)। বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বে তিনি লাইব্রেরির পাঠকক্ষ, তথ্য প্রযুক্তি কেন্দ্র, মিলনায়তন, ফ্রি ফ্রাইডে ক্লিনিক পরিদর্শন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, জীবনে শুধু নিজের জন্য নয়, অন্যর জন্য আমাদের বাঁচতে হবে তার উজ্জ্বল উদাহরণ অনির্বান লাইব্রেরি। তিনি বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীসহ সকলকে মাদক পরিহারের আহবান জানান। সবশেষে বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্রছাত্রীদের মাঝে নগদঅর্থ, ক্রেস্ট, সাময়িকী প্রদান করেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দুইদিন ব্যাপি অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়। এ অনুষ্ঠানে `তীর্যক` শিল্পীগোষ্ঠী যশোর ও অনির্বাণ শিল্পীগোষ্ঠী অংশগ্রহণ করে।

উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালের ১০ ডিসেম্বর মহান বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মকে গড়ে তোলার অঙ্গীকার নিয়ে ‘অনির্বাণ লাইব্রেরি’ নামের এই প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার মামুদ কাটী গ্রামের কেন্দ্রস্থলে থাকা হরিসভার একটি ঘরে লাইব্রেরির কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথমে প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের বাড়িতে যে সকল বই ছিলো সেগুলো দিয়ে লাইব্রেরির সূচনা হয়। এরপর সকলের কাছ থেকে বই ও অর্থ সংগ্রহ করে প্রতিষ্ঠানটিকে সমৃদ্ধ করা হয়।

Image may contain: 17 people, people smiling, people standing and indoor

প্রত্যন্ত উপকূলের একটি গ্রামে লাইব্রেরির কার্যক্রম শুরু হলেও কয়েক বছরের মধ্যেও তা খুলনা ও সাতক্ষীরা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় মানুষকে আকৃষ্ট করে। দুর-দূরান্তের অনেকেই এই লাইব্রেরির কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। যে প্রতিষ্ঠানটি কেবলমাত্র বই পড়ার স্থানে সীমাবদ্ধ থাকেনি। প্রতিষ্ঠানটি হয়ে ওঠে ওই অঞ্চলে প্রগতিশীল সংস্কৃতি চর্চার অন্যতম কেন্দ্রস্থল। ছাত্র-ছাত্রীদের বই পড়ার প্রতি আগ্রহী করে গড়ে তোলার পাশাপাশি লাইব্রেরির পক্ষ থেকে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর