শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৪:২০ পিএম


অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবিতে স্মারকলিপি

এডুকেশন বাংলা ডেস্ক :

প্রকাশিত: ১৮:৩৪, ২ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৪৫, ২ ডিসেম্বর ২০১৯

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০১৮ এর বেসরকারি কলেজে নিয়োগপ্রাপ্ত অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে খুলনায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার (২ নভেম্বর) খুলনার লোয়ার যশোর রোডে বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফোরাম খুলনা জেলা শাখার উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন শিক্ষক নেতারা।

সংগঠনের সদস্য সচিব সুব্রত কুমার মন্ডলের সঞ্চালনায় এবং আহবায়ক সঞ্জয় কুমার দাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসিবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক নেকবর হোসাইন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ন আহবায়ক গাজী মোফাজ্জেল হোসেন। মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন মোঃ হুমায়ূন কবির,সুক্রাচার্য রায়,মোঃ মোস্তফা এহসান, সাবিনা ইয়াসমিন,সঞ্জয় কুমার,মোঃ মুনিরুজ্জামান,সোহেল ইসহাক, শামীমুল ইসলাম, অন্তরা চৌধুরী, সবীর রায়, জিয়াদ ইসলাম, খারুজ্জামান সরদার, হাসিবুজ্জামান বাবু, আজিজুল হক, রিপন ব্রক্ষ, আব্দুর রব, সহ খুলনা বিভাগের যশোর, সাতক্ষিরা, বাগেরহাট, ঝিনাইদহ,মাগুরা, ও কুষ্টিয়া জেলার শিক্ষক নেতৃবৃন্দ।

স্মারকলিপিতে শিক্ষকরা উল্লেখ করেন, তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজসমূহে অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে শতভাগ বৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক। দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে অদ্যাবধি বাংলাদেশে উচ্চ শিক্ষা বিস্তারে এবং সরকারে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর অধ্যায় ০৮, কৌশল ০৬ (পর্যায়ক্রমে ডিগ্রি পাস কোর্স তুলে দিয়ে ৪ বছর মেয়াদী অনার্স কোর্স চালু করা হবে) বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন এবং বেসরকারি কলেজে উচ্চ শিক্ষায় পাঠদান করে আসছেন। কিন্তু উল্লিখিত বিষয়ে বর্তমানে ‘বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০১৮’ তে অন্তর্ভুক্ত বা কোনো নির্দেশনা না থাকায় তারা এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না। ফলে দেশের ৩ হাজার ৫০০ জন শিক্ষক আর্থ-সামাজিকভাবে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। ‘জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা’ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে একাধিকবার নির্দেশনাও আছে যা শিক্ষামন্ত্রণালয় কর্তৃক আজও বাস্তবায়ন হয়নি।

এডুকেশন বাংলা / এসআই

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর