শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:১৩ পিএম


অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি শিগগির: বিবেচনায় ১১তম ব্যাচ

প্রকাশিত: ১১:২৫, ২৬ আগস্ট ২০১৯  

অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতির বিষয়ে এসএসবির (সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড) সুপারিশ প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসের প্রথমদিকে পদোন্নতি হতে পারে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো থেকে এমন আভাস পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এসএসবির বৈঠকে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এর আগেও এক দফা বৈঠক হয়।

সূত্র জানায়, অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দিতে প্রায় ৪শ’ কর্মকর্তাকে বিবেচনায় নেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে নতুন করে বিবেচনায় এসেছেন ১১তম ব্যাচের ফিট কর্মকর্তারা। এ ব্যাচের ১২৭ কর্মকর্তা যুগ্ম সচিব হন ২০১৬ সালের ২৭ নভেম্বর। এর মধ্যে এখন অতিরিক্ত সচিব পদের জন্য ফিট কর্মকর্তার সংখ্যা ১২৬ জন। নিয়মানুযায়ী যুগ্ম সচিব পদে ২ বছর চাকরি করার পর গত বছর ডিসেম্বরে তারা অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতির যোগ্যতা করেন।

এদিকে নিয়মিত ব্যাচের কর্মকর্তা ছাড়াও নিয়মানুযায়ী লেফটআউট বা অতীতে পদোন্নতি বঞ্চিত কর্মকর্তাদেরও বিবেচনায় নেয়া হচ্ছে। এখানে ৮৪ ব্যাচের ৩১ জন, ৮৫ ব্যাচের ৯৩ জন, ৮৬ ব্যাচের ৫০ জন, ৯ম ব্যাচের ২৭ জন এবং ১০ম ব্যাচের যুগ্ম সচিব রয়েছেন ৪৪ জন।

সূত্র জানায়, লেফটআউট কর্মকর্তাদের মধ্য থেকে যত বেশি সংখ্যায় ছাড় দেয়া সম্ভব, সেরকম একটি ইতিবাচক পথে এগোচ্ছে এসএসবি। সে ক্ষেত্রে পদোন্নতির সংখ্যা দু’শ না ছাড়ালেও এর কাছাকাছি থাকতে পারে। তবে এ ক্ষেত্রে দুটি মত রয়েছে, যদি ৩১ আগস্ট পর্যন্ত অতিরিক্ত সচিব পদে পিআরএল কর্মকর্তার সংখ্যা ধরে পদোন্নতি দেয়া হয় তাহলে সংখ্যাটি ১৫০-১৬০-এর মধ্যে আটকা পড়তে পারে।

এ ছাড়া আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পিআরএল হিসাব করে পদোন্নতি দেয়া হলে সংখ্যাটি মন্দের ভাল হবে। বেশ কিছু সংখ্যক সিনিয়র কর্মকর্তা এ যাত্রায় কাক্সিক্ষত পদোন্নতির দেখা পাবেন।

এ সারির পদোন্নতি প্রত্যাশী কর্মকর্তাদের অনেকে বলেন, আমাদের অনেকের চাকরি আছে ৬ মাস থেকে ১ বছর। তাই সুপারিশ প্রদানের ক্ষেত্রে এসএসবির সদস্যরা নিশ্চয় মানবিক ও সামাজিক দিক বিবেচনায় নেবেন।

তারা বলেন, পদোন্নতি পাওয়ার ক্ষেত্রে নিয়মানুযায়ী কোনো জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার যদি সব কিছু সঠিক থাকে তাহলে তাদেরকে পুনরায় হতাশ করা সমীচীন হবে না। মোদ্দা কথা, পদোন্নতিযোগ্য প্রত্যেককে পদোন্নতি দিলে সরকার ও প্রশাসনের জন্য তা অনন্য দৃষ্টান্ত হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত জুনে যুগ্ম সচিব পদে ইতিবাচক ধারায় পদোন্নতি দেয়ার রেকর্ড সৃষ্টি করে এসএসবি। অবশ্য এ জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে সব কৃতিত্ব প্রধানমন্ত্রীর। তার নির্দেশনা ছিল- পদোন্নতিযোগ্য কেউ যেন বাদ না পড়ে।


এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর