সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৬:৩৪ এএম


অ,আ,ক,খ না জানার শিক্ষা এবং দায়ভার!

মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান

প্রকাশিত: ১১:৩৮, ১ জুন ২০১৯   আপডেট: ১১:৫৪, ১ জুন ২০১৯

এই দেশের একজন শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা হিসেবে আমার নিজেরই লজ্জা লাগে যখন দেখি স্বরবর্ণ বা ব্যঞ্জনবর্ণ ( অ, আ,ক,খ) ঠিকমতো না বলতে পারা ছেলেটি বা মেয়েটি কতিপয় শিক্ষকের লেবাছ লাগানো জাতি ধ্বংসের কারিগরের সোনার কাঠির ছোঁয়ায় A বা A+ পাচ্ছে!!অথচ ঠিকমতো উত্তরপত্র মূল্যায়ন করলে এদের অধিকাংশই ১৫% -২০% নম্বরও পেতেন না!!!

এই লেবাছধারী শিক্ষকগণের অভিযোগ বেশি ফেল করালে পরের বছর উত্তরপত্র মূল্যায়নের জন্য ডাকবে না!!না ডাকুক,তাতে কি হবে?মাত্র ৭০০০-৮০০০ টাকা ইনকামের জন্য এভাবে শিক্ষা ধ্বংসের লাইসেন্স কে দিয়েছে আপনাকে???আপনার এই উদারতা নামক সোনার কাঠির জন্য এখন ছেলেময়েরা পড়ালেখা না করে শুধু উদ্দীপকের গল্পটি এদিক সেদিক লিখেই পাশ করছে।এই সময়টুকু সোনার ছেলেরা বা মেয়েরা কোনো অকাজ বা কুকাজে ব্যয় করছে।

এখন বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রীদের না বুঝে মুখস্ত করার ধরণ নিম্নরূপ হয়!!!

পৃথিবী , পৃথিবী, পৃথিবী
কমলালে, কমলালে, কমলালে
বুর মতো বুর মতো, বুর মতো গোল!!!!!!......।

http://www.educationbangla.com/media/PhotoGallery/2019March/11120190601053855.jpg

# হয়তো ছেলেমেয়েরা এরকম আরও মুখস্থ করার সৃজনশীল ধরণ আবিষ্কারের নেশায় বুঁদ!!!!
# হয়তো তারা উদ্দীপকের গল্পটি ইনিয়েবিনিয়ে লেখার আশায়ই ফেসবুক,মেসেঞ্জার বা ইউটিউবে বিনিদ্র রজনী অতিবাহিত করছে!!
না লিখে বা আজেবাজে লিখে বা না পড়ে পাশ করা গেলে কেউ কি কষ্ট করে পড়ালেখা করবে???এমনও অনেক ছাত্রছাত্রী আছে যারা অ,আ,ক,খ ১,২,A,B,C,D ঠিকমতো লিখতেও পারে না অথচ এসএসসি বা এইচএসসি পাশ করে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করছে!! ছাত্রছাত্রীদের এই নষ্ট মানসিকতার জন্য কি আমাদের শিক্ষক সমাজের কোনো দায় নেই??? তাহলে এ দায় কার???????

[বি.দ্র.কাউকে আঘাত করা এ লেখনির উদ্দেশ্য নয়।বরং শুভ বোধ জাগ্রত করাই উদ্দেশ্য। সকল শিক্ষক এর জন্য দায়ী নয়,কারও সাথে মিলে গেলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন বলেই আমার আশাবাদ। ]

লেখক:৩৩তম বিসিএস`র শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা ও প্রভাষক, সদরপুর ডিগ্রি কলেজ 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর